Thursday, 30 December 2010

কোথায় যে দেখিছি তোমায়

কোথায় যে দেখিছি তোমায় 
১.দেখেছি তোমায় কাদা পায়ে 
মাঠ পেরিয়ে সেই গঙ্গার ধারে
প্রাচীন কালী মন্দিরের বট -
বৃক্ষের ভাঙা সিড়ির উপরে 
গাঙচিলের সেই অসয্য চিত্কারে,
তুমি কী এখনো বসে আছ পা 
ঝুলিয়ে, ঘোলাটে অলস লহরে,
 শুধিয়ে ছিলাম এক দিন যে 
ডিঙ্গার হিল্লোলিত আবেশে ও থাকে 
নব সৃজনের অজস্র লুকানো গান 
ভেজা পায়ের ছাপে ছিল কিছু 
বিসর্গ বিন্দু প্রেমের বর্ণ পরিচয়, 
হাঁটু জলে নেমে তুমি চেয়ে ছিলে 
ডুব দিতে,প্রণয়ের কচি সাগরে 
তোমার বায়না শুনি নি সে দিন 
সেউলির অবিকসিত কুড়ি, শরতের 
ছোঁয়া ছিল বহু দূর ভিন্ন দেশে,
তুমি শুনো নি মনুহার কোনো রূপে 
পা এগিয়ে ছিলে সেই অজানা বাঁশ বনে 
কোন স্বপ্ন বুকে জড়িয়ে, শুনেছি 
দিবা নিশি বসে থাক মন্দির প্রাঙ্গনে,
শুনি চোখে নিয়ে উড়ন্ত অতীত 
সূর্য ঢলে গেছে নিস্তব্দ্ধ কবে যে 
সুপারি, নারিকেল বাগান বাদ দিয়ে 
চতুর্দশী চাঁদ উঠেছে বাঁশ  ঝোপের অনেক উপরে /
---- শান্তনু সান্যাল 
২.কোথায় যেন দেখিছি তোমায় 
পিতাম্বরী লাল পাড়ের তাঁতের সাড়িতে 
এক হাতে কুচি অন্য হাতে চটি ঝুলিয়ে 
তুমি ভয়ে থর থর 
সাঁকো পার করে গেছ ওই খালের 
বাঁ দিগে, সেই ঝুলন্ত আঁচল 
নিস্ছল হাসির মাঝে 
ছড়িয়ে গেছ একান্ত মাছরাঙ্গা 
বাতাস, কচি ধানের শিষে 
যেন ঢেউ খেলে যায় শারদীয় 
অন্তের সমীরণ, ওই সবুজ বাতায়নে 
স্বপ্ন কিছু সেউলির গন্ধে মাখা,
সূর্যের তীব্রতায় আবার 
দেখি তুমি সুদূরে শিমুল ফুলে 
বাসন্তিকা হয়ে রয়েছে অজয় নদীর পারে 
বাউলের বৃন্দ গানে কখনো দেখি 
আছ বৈষ্ণবীর সাজে 
পরে রয়েছে গলায় আমার তুলসী 
কাঠে জড়ানো কবিতা 
তোমার প্রেমের আবীর মেখে যায় 
অতুকান্ত ছন্দের পঙ্ক্তি, লাজুক হাতে 
আবার চেয়ে দেখি হটাত সাগর সঙ্গমে
হয় উঠেছে স্বছন্দ উর্মি মালা 
উন্মুক্ত কুন্তল খুলে যেন দিয়ে যাও 
হাতছানি, সেই ভুবন ভাসানো হাসি 
প্রতি পল দিয়ে যায় রহস্য গভীর 
অবাক  আমি পৃথিবী !
-- শান্তনু সান্যাল 
painting - sujeet kumar ghosh - kolkata 

রঙ্গ মঞ্চ বিহীন

রঙ্গ মঞ্চ বিহীন

রঙ্গ মঞ্চ বিহীন এই পুতুল নাচের খেলা


 তুমি আমি শুধুই নয় 

রয়েছে মহামিছিল, অদৃশ্য দর্শক ও শ্রোতা 

এই অন্তরিক্ষ জড়িত যবনিকা 

অগনিত প্রকাশপুঞ্জ মায়াবী নিহারিকা 

ভেসে যায় শুন্যে , গতিময় জন্ম মৃত্যুর ভেলা,

বৃহতম সেই কালজয়ী মহা চক্র 

দুলে যায় তীব্র বেগে সময়ের অজয় নাগরদোলা 

জানি তুমি বিশ্ব বিজয়ী নিজের ভুবনে 

তবুও পরাজিত অন্তঃ দাহের সমরে 

রাজন ও ভিক্ষু চলেছে এক পথে অনাম সন্ধি বেলা,

এখানে উদিত ভালবাসার শতদল পূর্ণ রূপে 

জলধির  বক্ষে আবার লুপ্ত মহা অগ্নিশিখা 

চেয়ে ও পাস কাটিয়ে যাওয়া অসহজ ও মুশকিল 

সব কিছুই পঞ্জিবদ্ধ রয়েছে অপরিচিত খাতায়

সময়ের বুকে সকল মুদ্রিত সর্ব প্রেম ও  অবহেলা ,

রং মঞ্চ বিহীন এই পুতুল নাচের খেলা //
-- শান্তনু সান্যাল 
painting by -JONE BINJONELLI -Italy

রঙ্গ মঞ্চ বিহীন


রঙ্গ মঞ্চ বিহীন

রঙ্গ মঞ্চ বিহীন এই পুতুল নাচের খেলা

 তুমি আমি শুধুই নয় 

রয়েছে মহামিছিল, অদৃশ্য দর্শক ও শ্রোতা 

এই অন্তরিক্ষ জড়িত যবনিকা 

অগনিত প্রকাশপুঞ্জ মায়াবী নিহারিকা 

ভেসে যায় শুন্যে , গতিময় জন্ম মৃত্যুর ভেলা,

বৃহতম সেই কালজয়ী মহা চক্র 

দুলে যায় তীব্র বেগে সময়ের অজয় নাগরদোলা 

জানি তুমি বিশ্ব বিজয়ী নিজের ভুবনে 

তবুও পরাজিত অন্তঃ দাহের সমরে 

রাজন ও ভিক্ষু চলেছে এক পথে অনাম সন্ধি বেলা,

এখানে উদিত ভালবাসার শতদল পূর্ণ রূপে 

জলধির  বক্ষে আবার লুপ্ত মহা অগ্নিশিখা 

চেয়ে ও পাস কাটিয়ে যাওয়া অসহজ ও মুশকিল 

সব কিছুই পঞ্জিবদ্ধ রয়েছে অপরিচিত খাতায়

সময়ের বুকে সকল মুদ্রিত সর্ব প্রেম ও আবহালা,

রং মঞ্চ বিহীন এই পুতুল নাচের খেলা //
-- শান্তনু সান্যাল 
painting by -JONE BINJONELLI -Italy