Wednesday, 11 May 2011

প্রতিবিম্ব



সুদূরে ছায়াময় নাবিক
বেয়ে যায় জীবন খেয়া অবিরাম
অদৃশ্য ছন্দময় ধারা বহে মন্থর বেগে
যেন নিষ্প্রভ বিন্দু বেসে চলেছে
ভাবনার প্রবাহে
মুহানার মোহে অগ্রগামী নদী
অবহেলিত তলানির ব্যথা
দীর্ঘ নিঃশ্বাস ফেলে তটবন্ধ
বয়প্রাপ্ত রাত্রির বুকে হিমল প্রহার
স্থির সংবেদনার হটাত -
চক্রবাতীয় জাগরণ,
দ্রুত পাকে ঘুরে স্বপ্ন বলয়
খন্ডিত জলরাশির বিষন্নতা,
উদ্বেলিত মনের আঁধার -
করুন সুরে নদী - উপত্যকা, করে
শেষ প্রহরে শোকের বৃন্দ গান,
তীরের অনাম শ্বেত পুষ্পের শাখা,
ঝরিয়ে যায় অনুকম্পার অশ্রু
পূর্ণ শশী মুক ভাবে চেয়ে রয়
নদীর তুরীয় আত্ম মন্থন সারা রাত !
অপরিচিত প্রতিবিম্ব জলের মাঝে
করে রহস্যের রচনা,
দেখি মনের সমস্ত লালসা, ক্রমশঃ
নিমজ্জনের পথে, পূর্ণ বিসর্জনের মুখে
ঝরিত শ্বেত কুসুমের মালিকা
ধীরে ধীরে পীত বর্ণে পরিবর্তিত,
বহে চলেছে জীবন উজানের দেশে !
--- শান্তনু সান্যাল