Thursday, 26 May 2011


পুনর্লিখন

জীবন চলমান থামে না এক জায়গায়
পৃষ্ঠ বদলিয়ে নিন, নতুন পাতায়
মৌসুম লিখে গেছে নব স্মারকলিপি,
যাযাবর মেঘের ঝাপসা গন্তব্য !
কূল খুঁজে পায় না মনের চঞ্চলতা,
কারা চেয়ে আছে নদীর বক্ষস্থল
সাঁঝের নেমে আসার দৃশ্য !
কোনো দিন আগে ত দেখি নি, সে
সমস্ত মুখ কালের গালে গেছে হারিয়ে
জানি না তারা ছিল না কি নদী তীরে,
উড়ন্ত সেতু ছুঁয়ে যায় আকাশ পথে
শুনেছি বৃন্দ বিলাপ অমাবস্যার রাতে
করে থাকে ধ্বন্স স্তূপ,জীর্ণ মন্দির
ইতিহাসের পুনরাগমন নাকি
অবশ্যম্ভাবী,কখন,কি ভাবে,বলা কি
সহজ,কিন্তু ভবিষ্যৎএক রহস্যময়
প্রহেলিকা,নদীর প্রতিঘাত, তট
পরিবর্তন দুখদায়ী, এখানেই স্বপ্নের
সৃষ্টি জাগিয়ে রাখে সুপ্ত
মহত্বাকান্ক্ষিক অভিলাষার চর,উপরে
মরু ভিতরে বহে যায় লুপ্ত প্রবাহ,
গ্রহের গ্রহন ক্ষনিক অন্ধকার,
যারা পার করে গেছে ছায়াগ্রস্ত অন্তরিক্ষ
তারাই আজ স্থায়ী বাসিন্দা -
চন্দ্রলোকে, উদ্ভাসিত জগতে করে তারা
আলোকের গান, গর্ভিত প্রাণ
লিখতে চায় ইতিহাস পুনঃ পুনঃ !
প্রেরিত করে যায় মৃত সংস্কৃতি,
জাতীয় অভিমান,বেদের দুরূহ ঋচা,
জয় উদঘোষিত করে পূর্ব পুরুষের কন্ঠ,
তারা নমন মুদ্রায় করে বিজয়
আত্মসাত, বিনম্র ভাবে ঝরে আকাশ
কুসুম, পৃষ্ঠ যায় বদলিয়ে,
বাতায়নে রেখে যায় স্মৃতি গন্ধ --
-- শান্তনু সান্যাল