Wednesday, 6 April 2011


স্মৃতির সরু পথে 

পরিত্যক্ত  জীবন, বন্য আগাছা, নামবিহীন  

গুল্ম ঝোপ, কিন্তু ফণীমনসা ভুলে না ফুটতে  

উধ্বস্ত ঘর, ধ্বংসিত আচ্ছাদন, ভূমিসাত দেয়াল 

স্বপ্ন এখনো উচ্ছ্বাসিত, বহুভুজ পথে 

না কোনো অনুতাপ নাহি কোনো অভিযোগ 

তোমার অবর্তমানে ও শিখেছি বাঁচতে 

তা সত্তেও, সে ছিল এক দুঃস্বপ্ন, প্রচণ্ড আতঙ্ক   

অনিদ্রিত কালরাত্রি, ভাঙা নিঃশ্বাস  

বিভ্রমিত ভাবনা, কখনো আবার ধেয়ে যাই 

স্মৃতির সংকীর্ণ গলি পথে, নিরন্তর, উদাসীন 

দেখি তুমি এখনো মনের কাছে 


জীবনের সন্নিকটে, ভুলিতে চেয়েছি বহু বার 

তোমার বর্চস্ব হৃদয়, আত্মা, দেহে একাকার 

বিভক্ত করা সহজ না, মুশকিল বটে 

বিগলিত লৌহ পথে তবু যাই আমি হেঁটে 

কি ভাবে বিমুখ করি পরিবেশের এই 

প্রফুল্লিত কুসুমের হাসি, পাখির বৃন্দ গান 

আমার জীবন চায় নতুন যাত্রা, ভিন্ন আলো

এই দুঃখের সান্দ্রতা, তীব্রতার কি মূল্য  

কত মুখে যায় হাসি হারায়ে 

চুম্বন,আলিঙ্গন, যুগল শয়ন রাত্রি, দেহের গন্ধ
  
দিলাম করে মুক্ত আসক্তির শৃঙ্খল 

পুছে নিলাম বুকের ঘনীভূত নিশ্বাসের বাষ্প,

অধর উষ্মিত দাগ, পঞ্জরাস্থির আদ্রতা 

চন্দ্রিমা দিও না উঁকি আজ আমার সোহাগের 

যামিনী !
--- শান্তনু সান্যাল