Tuesday, 7 June 2011

শুন্যের রঙ্গমঞ্চ
জেদী মনের প্রবল ইচ্ছা
ছুঁতে চায়  বিধ্বংসী অগ্নি প্রবাহ
ভাসতে চাহে স্বর্ণ নিষ্কাসনের পথ
হইতে অনন্ত প্রেমের ক্ষিতিজ,
অপর পার্শ্বের সেই অজানা জগত
নশ্বরতার বাহিরের পরিভাষা
গড়তে চায় হৃদয়, দাহিত দেহে
না কি ঝরে অসীম শীতল
অদৃশ্য নয়নের নীর,সেই অশ্রু
জলের লবনতায় জীবনের সত্যতা
না কি প্রতিবিম্বিত, ডানাবিহীন
অলৌকিক প্রণয়ের পাখি উড়ে
যেতে চায় আকাশপথে অবিরাম,
উল্কার সেতু, নীহারিকার সমুদ্র পারে,
যাযাবর মনের সংবেদনা  ঠাঁই
পায় না কোথাও কোনো রূপে,
খুঁজে চলেছে নিরন্তর এক অভিনব
সংসৃতি, নবীন মেঘের দেশ
অদ্বিতীয়, উড়ন্ত  প্রেমের পৃথিবী,
ভালবাসার বৃষ্টি যেখানে ঝরে
একটানা, বাদ পড়ে না মরুভূমি ও
উর্বর ভূভাগ, সেই কল্প লোকে
না কি ছদ্ম ছায়া অস্তিব হীন,
মুখোশের অর্থ ওখানে কেও জানে না,
শুন্যের সেই রঙ্গমঞ্চে শুধুই
বাস্তবিক জীবনের খেলা খেলে যায়
প্রেমের পাত্র, উল্লসিত ভাবে !
-- শান্তনু সান্যাল





t