Friday, 27 May 2011



আদ্র রাত্রি

পুনঃ জ্বলুক অনল,কাল বৈশাখীর
অসমাপ্ত রাত্রি বহিবে সকাল পর্য্যন্ত
নিবিড় অন্তরঙ্গের উপাদান
আসক্ত গ্রন্থির  উন্মুক্ততা
নৈসর্গিক ঢালু পথে বহে তরলতা,
সেই পৃথিবী সৃজনের সাঁঝে
দিয়ে ছিলুম প্রতিশ্রুতি, আজ
প্রন্তবর্তীত হয়ে উঠেছে প্রেমের রূপ
অসীম ,অপরিভাষিত এক উপাসনা,
ঢেলে গেছে জীবনের অঙ্কুর
পাষাণে দেখি তাই সজীবতার অংশ,
খুলে দাও সকল বাতায়ন, লুপ্ত
লৌহ কপাট,দেবত্বের আলোক রশ্মি !
অবিরাম কড়া নড়িয়ে যায়
দিবা নিশি, মন্থিত আত্ম পিযুষ,
সুদূর অরণ্যে, কাষ্ঠ সেতু এ আজ 
জোনাকিদের  সপথ সমারোহ,
উদ্ভাসন ক্রমশঃ উলম্বিত
আচ্ছাদন মুখী, সে এক বিহঙ্গম দৃশ্য !
বন্য কুসুমের বৃহত পুঞ্জ সুরুভি,
নেত্র
প্রণোদনা মূলনীতির বাহিরে
চিরদিন, মৌন ভাবনার মাঝে র -
স্থান তরঙ্গ ময় জলাভূমি,
স্ববিম্বে বিচলিত মৃগের তৃষা,
চাঁদের জাদু ঢেলে রয় অতিরিক্ত
সম্মোহনের জোছনা, জামিরা নিশীথ
ঝড়ের আরোহণ ক্ষনিক, নিশান্তে
এক পশলা বৃষ্টি , স্বপ্নের অঙ্কুরণ, প্রেম
জেগে থাকে যেন প্রাচীন আগ্নেয় গিরি,
-- শান্তনু সান্যাল