Thursday, 15 March 2012


পরিভাষার বাহিরে 

দেবদূত সম ঝর হে আকাশ, উপেক্ষিত 
শোষিত, নির্বস্ত্র  বুক খুলে বসে 
আছে মরু প্রান্তর, 
নির্লজ্জতার 
পরিভাষা বুঝে না জঠরাগ্নি, খুলে যাও 
ছদ্ম সভ্যতার শিকল, সরিয়ে 
দিও তত্ব বিদ্যার 
যবনিকা, 
সাকার নিরাকারের উপরে আছে সে এক 
উত্তরজীবিতা, জীবন্ত এক 
বাস্তবিকতা, সে
পঞ্চ তত্বের 
গোলকধাঁধা বোঝে না, শুধুই জানে -
সকাল সাঁঝে জীবনের 
অবিরাম যুদ্ধ, 
বাঁচনের 
উপায়, যে ভাবেই  হোক উদ্বর্তনের -
সন্ধান, বিধ্বস্ত, শাপিত
লুন্ঠিত, উচ্ছিন্ন, 
জীবন 
লড়ে যায় অন্তিম নিঃশ্বাসের সঙ্গে দিবা 
নিশি, মূর্ত অমূর্ত, নাস্তিক 
আস্তিকের বাহিরে 
সে যেন 
শাশ্বত সত্য, ধর্ম অধর্মের দর্শন বুঝে 
না,  ক্রমাগত ধেয়ে যায় 
জীবন যাপনের 
পথে,
তবু স্বপ্ন দেখা ছাড়ে না অন্তর্মনের আঁখি,
শ্রাবণ আসুক বা না আসুক 
বৃষ্টি ঝরুক বা না 
ঝরুক 
সে লাঙ্গল বাদ দিতে পারে না, সে নিজের 
সাথে প্রবঞ্চনা করে না  - - 

- শান্তনু সান্যাল
http://sanyalsplanet.blogspot.com/ 

No comments:

Post a Comment