Thursday, 29 March 2012


বিরল বীথিকার পথে - - 

পাহাড়ের গা ভিজিয়ে উড়ে গেছে, প্রাক মৌসুমী 
সমীরণ, খোলা জানালার জগতে আছে 
মনের সজলতা বাকি, কিছু আর্দ্র 
অনুভূতি, সে রেখে গেছে 
মিষ্টি অদ্ভুত গন্ধ,
দেহের 
পরিলেখে জেগে আছে প্রগাঢ আবেগের  বিন্দু, -
উড়ন্ত যবনিকার চুনটে ঝুলছে উন্মুক্ত 
ভালবাসা, যেন ছুঁয়ে গেছে 
রুপালি আলো ধীর 
বেগে সেই 
কাঞ্চনজঙ্গার চূড়া, তার চাপানো হাসির কণা
ছড়িয়ে রয়েছে এখনো, তাই ঝিলমিল 
জীবনের মলিন আয়না, কোথা
হতে ক্ষিপ্র সুরভি ভেসে 
আসছে যেন 
অবেলায় 
ফুটে চলেছে হাসনুহানা, সুদূরে শ্রাবণ হয় ত 
দিয়ে চলেছে চরমপত্র, দোষ দিও না 
যদি ভেঙে যায় ভাবনার 
জলাধার, মহা 
প্লাবনের 
পূর্বাভাস, ঝিলের ওপারে নেমে আসছে মেঘের 
সঘন ছায়া, উড়ে যাচ্ছে নীলাভ ছাই 
রঙ্গী সারসের দল, আকাশের 
বুকে অশনি সংকেত, 
কিংবা তার 
প্রণয়ী সৃজনের প্রারব্ধ, নৈসর্গিক বিলুপ্ত সৃষ্টি! 

- শান্তনু সান্যাল
PAINTING BY FRANK ARID 

No comments:

Post a Comment