Wednesday, 11 April 2012


খুব কাছের বন্ধু 

শুঁয়োপোকার থেকে শুরু করে, রেশম গুটির 
বাহির অব্দি, সে বাঁচতে চেয়ে ছিল, 
পতঙ্গ হয়ে এক দিন উড়ে 
যাবে দেশ দেশান্তরে, 
গায়ে জড়িয়ে 
ভালবাসার পশম, বিপ্লবী পাখায় সাজিয়ে - 
আপনজনের স্বপ্নের পরিলেখ, নানান 
রঙ্গে আঁকা যেন সুগন্ধিত প্রেম 
পত্র, তুঁতগাছের পরেই 
ছিল চেরিফুলের 
বাহার, তাই 
খুব সাহস জুগিয়ে উপান্তে সে এগিয়ে ছিল, হয় 
ত মৌন স্বীকৃতি ও পেয়েছিল, অনিদ্রায় 
বেশ ক এক দিন ভুগেও ছিল, যা 
সামন্য হয়, শৈশবের সমাপ্তি 
কিশোর বয়সের পদার্পণ,
হটাত দেখি এক 
দিন সে 
রাত জেগে কবিতা লিখে চলেছে, অবশ্যই 
একের পরে এক বানানের ভুল, 
জানিস এটা নেশা, ধরলে 
আর ছাড়ে না, বেশ 
ভালই ত -
আমার মনে ও সে দিন প্রেম করার বাসনা 
জেগে ছিল অজান্তে, কিন্তু চেপে গেছি,
মুখচোরা আমার অস্তিত্ব তাই 
প্রেম করতেই পারি নি, 
তার জীবনের 
পরিবর্তন 
দেখে হিংসে হয়ছে বৈকি, কিন্তু আজ ভাবি 
ভালই হয়েছে এক দিকে, বিরাট 
স্বপ্ন জড়িয়ে বুকে হয় ত 
আমি ও রয়ে
যেতাম
ঠিক দিনলিপির কোণে, অজ্ঞাত আত্মঘাতীর 
রূপে, যাকে সবাই সহানুভূতি দেখায় 
কিন্তু ভালবাসে কেউ না, সে 
এক বিস্মৃত কাহিনী 
সময় তাকে 
মনে রাখে না, সে ঝরে যায় বসন্তের আগে - - 

- শান্তনু সান্যাল
cherry blossom tree by ~LayingQuiet 

No comments:

Post a Comment