Friday, 3 March 2017

চিরন্তন ধাঁধা - -

অবশ্যই, আজও মনের জানালা, উন্মুক্ত খুলে
আছে ঠিক দিগন্তের অভিমুখ, জানি না
আজও কি তুমি ভেসে যাও, ওই
উত্তাল সাগরের বুক ছুঁয়ে।
অবশ্যই বহু দিন হল
আমি শুনে নি
কড়া
নাড়ার শব্দ, জলজ পাখিদের ঝাঁক যথারীতি
উড়ে যায় দক্ষিণা আকাশে, বহুদূর - -
জানি না কোন দেশের তারা
যাত্রী, কিংবা রীতিমতো
যাযাবর, ভালই
লাগে
জানলার বাইরের জগৎ, উড়াল পুলের উপরে
উড়ো জাহাজ, আর কিছু টুকরো সাদা -
মেঘ, কিন্তু আকাশটা বড়ই যেন
ধূসর, যুগের মরচে মাখা,
শুধুই পুড়ে যাচ্ছে
জানি না
কার
অভিশাপে।সময়ের ছানি, সন্ধ্যার অপেক্ষা - -
করে না, অন্ধকার, খুবই কাছের
মানুষ, দরজা না খুলেই ঘরের 
ভেতরে নিঃশব্দে ঢুকে
পড়ে। অবশ্যই
আজও মনে
হয়
কোথায় যেন তরঙ্গিত আছে প্রেমের কূল বিহীন
সরোবর, কাজেই উদ্বেলিত করে যায় মাঝে
মাঝে, অদৃশ্য কপিঞ্জলের চিৎকার - -
আর ভেসে আসে সুদূর হতে
সজল মানসুনি সমীরণ।
ধীরে - ধীরে
নিঃশ্বাসে
আমি
খুঁজে পাই অনেক কিছু, জীবন যথারীতি হয়ে - -
ওঠে তখন প্রতিষেধক, আর ভুলে যেতে
চায় হিসেবে - নিকেশের  চিরন্তন
ধাঁধা - -

* *
- শান্তনু সান্যাল 



No comments:

Post a Comment